কবুতরের টক খাদ্য (Sour crop), বড় হাপর (Big Blowers) শস্য আটকানো রোগ।

কবুতরের টক খাদ্য (Sour crop), বড় হাপর (Big Blowers) শস্য আটকানো রোগ।
kobutor palon 


কবুতরের টক খাদ্য (Sour crop), বড় হাপর (Big Blowers) শস্য আটকানো রোগ।


টক খাদ্য(Sour Crop)/ বড় হাপর(Big Blowers)/শস্য আটকানো(Crop binding) এর চিকিৎসার থেকে প্রতিকারের ব্যাবস্থা করা ভাল। দেখা গেছে ৯০% ভাগ টক খাদ্য(Sour Crop)সমস্যা তৈরি হয় পাখির অধিক খাদ্য গ্রহনের ফলে। আর বিশেষ করে অধিক পরিমান পানির গ্রহনের ক্ষেত্রে এটা বেশি হয়। সাধারণত বড় আকারের ফসল খাবার ফলে এটা হবার সভাবনা একটু বেশী থাকে। এটা যদি খাবারের বরাদ্দ অংশ নির্দিষ্ট করিয়া দেত্তয়া হয় এবং ছোট আকারের খাদ্য দেওয়া হয় তাহলে এর ধরনের 
সমস্যা হবার সম্ভাবনা অনেক কমে যায়। এই ধরনের সমস্যা সাধারণত স্ফীতবক্ষ পারাবত বিশেষ(Pouter) কবুতর বেশী ঝুকির মধ্যে থাকে। 

কারনঃ

এই সমস্যা টা তৈরি হয় মুলত যখন খাবার ও পানি শেষ হয়ে যায় ও দীর্ঘ সময়, কোন প্রকার খাবার ও পানি সরবরাহ না করা হয়। আর এরপর যখন খাবার দেওয়া হয় থখন তারা পাকস্থলীর পূর্ণ করে খায় ফলে এর মধ্যস্থ খাদ্যাদি ও পানির ভারে পাকস্থলী ঝুলে পরে ও হজমের অসুবিধা হয়। অনেক সময় ধান বা এই জাতীয় খাবার পাকস্থলীর মধ্যে আটকে গেলে পরে সংক্রমণ হয়ে এটা হয়। আবার প্রজননের সময়ও দুধ উন্নয়নশীল পাখি/কবুতর থেকে ঘটতে পারে। অনেক সময় নর মাদিকে ডিম পারার সময় তাড়িয়ে নিয়ে বেড়ায়, এই সময় মাদী ঠিক মত খেতে ও পান করতে পারে না, আর হটাত করে খাবার সুযোগ পেলে বা ডিমে টা দেবার সময় ডিম থেকে অনেকক্ষণ পর উঠে গাণ্ডেপিণ্ডে খেলে এই সমস্যা হতে পারে। তবে ব্রিডিং জোড়ার ক্ষেত্রে নর কে আলাদা করে বা ডিমে তা দিবার সময় বা নর দ্বারা মাদিকে উত্তেজিত করার সময় আলাদা করে, যদি নির্দিষ্ট পরিমান খাবার দেওয়া হয়। স্ফীতবক্ষ পারাবত বিশেষ(Pouter) কবুতর কে ঘনঘন খাবারের বরাদ্দ অংশ নির্দিষ্ট করিয়া দেত্তয়া হয়। তাহলে এই ধরনের সমস্যা থেকে নিরাপদ থাকবে। মনে রাখতে হবে যে, যদি খাবারের ক্ষেত্রে এই ব্যাবস্থা না নেয়া হয় তাহলে ২-৩ দিনের মধ্যে sour crop হতে পারে।প্রতিরধ ও প্রতিকারঃ 

খামারিকে কখনই এই ধরনের খাবারের ব্যাপারে বিধি নিষেধ আরোপ করা ঠিক না। এক্ষেত্রে কবুতর(Pouter)যদি সব সময় খাবার ও পানি সরবরাহ করা হয়,আর যদি তারা সব সময় হাতের কাছে খাবার ও পানি পায় তাহলে তাদের খাবারের ব্যাপারে তেমন আগ্রহ থাকবেনা , যেমন অনেক ক্ষণ পর দিলে থাকে। তবে এর ব্যাতিক্রম ও হতে পারে।আর এই কারনেয় খামারে বিভিন্ন উৎসে খাদ্য মজুদ থাকা উচিৎ। খাদ্য আবদ্ধ হয়ে বা (ওভারলোড) হয়ে পাকস্থলী তে তা পচে বা টক খাদ্য(sour crop) হবার আগেই অবিলম্বে এর চিকিত্সা করা উচিত। প্রথম উপসর্গ হিসাবে একটি নিস্তেজ হত্তয়া । হবে।তারা চেহারায় একটা দুঃখিত বা অসুস্থতার ভাব নিয়ে এক কোনে চুপ করে বসে থাকে। যেহেতু তাদের পাকস্থলী খাবারে পূর্ণ থাকে তাই তারা আর খাবার ব্যাপারে তেমন আগ্রহ দেখায় না। আর এই সময় চিকিত্সা করা না হলে কয়েক দিনের মধ্যে মারা যায়।সাধারণত তাদের মুখের ওপর দু:খিত বর্ণন সঙ্গে কোণে বসতে এবং মাত্রাতিরিক্ত ভারী ফসল কারণে ডাউন ডিম্বপ্রসর হবে সম্ভবত. অবশ্যই তারা এই সময়ে খাওয়া হয় না এবং চিকিত্সা করা না হলে কয়েক দিনের মধ্যে মারা হবে।তারা চেহারায় একটা দুঃখিত বা অসুস্থতার ভাব নিয়ে এক কোনে চুপ করে বসে থাকে। যেহেতু তাদের সাধারণত কবুতরের পাকস্থলী পানিতে পরিপূর্ণ করে উল্টিয়ে বুকে হালকা চাপ দিয়ে পানি বের করে দিতে হবে। যদি পাকস্থলী খাদ্যশস্য বা ক্ষুদ্র দলা ধরনের কোন কিছু দ্বারা পরিপূর্ণ থাকে তাহলে হালকা উষ্ণ গরম পানির সাথে probiotics মিক্স করে পরিষ্কার করতে হবে। অথবা অ্যাপেল সিডার পানির সাথে মিক্স করে flush করতে পারেন অথবা অল্প একটু বরিক পাওডার পানির সাথে মিক্স করে flush করতে পারেন। খাবার জমে থাকার ফলে পাকস্থলী ব্যাকটেরিয়া তৈরি হতে পারে অথবা রোগের আধিক্যে Doxivet 1 Gram পানির সাথে মিক্স করে অথবা ৩০ সিসি পানির সাথে ১ গ্রাম বেকিং সোডা মিক্স করে flush করতে পারেন। এভাবে ২-৩ বার পূর্ণ করে flush করতে হবে। flush এর জন্য আপনি বড়(গাড়ির battery তে পানি দেবার সময় যে ড্রপার ব্যাবহারও করা হয়।) ড্রপার ব্যাবহার করতে পারেন। যদি কবুতর বড় দানা খাদ্য খেয়ে থাকে তাহলে এটা খুবই কঠিন হয় বের করে আনা। আর এটি বেশী ক্ষতির কারন হয়ে দাড়ায়। এই অবস্থায় কবুতর পানিশূন্যতায় ভুগতে পারে তাই তাকে স্যালাইন পানিতে দিতে পারেন,জাতে পানি শূন্যতা দূর হয়। যদি কবুতরের হাপর( Blowers) বড় হয়ে যায় তাহলে, তা একটা কাপড় দিয়ে হাড় ভাঙ্গা রুগীর মত গলার সাথে বেঁধে রাখতে হবে। যেন এটা ঝুলে না থাকে। এই অবস্থা সেরে যাবার পরও চামড়া তা ঝুলে থাকে আর এই অবস্থায় চামড়াটা ধরে রাবার ব্যান্ড দিয়ে বেঁধে দিতে হয়। জরুরী ভাবে মনে রাখতে হবে যেন আটকানো খাবার কোন মতেই ভিতরে না থাকে। 

এ পর্যায়ে তা অবিলম্বে আবর্তক(Recurring) থেকে এটি প্রতিরোধ করার জন্য গুরুত্বপূর্ণ। 
পাকস্থলী খাদ্যশস্য বা ক্ষুদ্র দলা থেকে পরিষ্কার হবার পর পরই আবার প্রচণ্ড খুব ক্ষুধার্ত এবং তৃষ্ণার্ত হবে কারনে তাদের যদি অবিলম্বে আবার খাবার সুযোগ দেওয়া হয় তাহলে এই ঘটনা পুনরায় ঘটবে। 

ধরুন আপনি সকালে কবুতর টিকে কয়েকবার flush করে খামারে ফিরিয়ে দিলেন আর এই ঘটনা যদি আবার ঘটে তাহলে এটা দোষ সেই প্রাণীটিকে দিব না এর জন্য আপনি দায়ী থাকবেন। পাখি পরিপূর্ণ সুস্থ না হাওয়া পর্যন্ত আল্প পরিমান খাবার ও পানি আকাধিক বার দিতে হবে। তবে তরল খাবার দেওয়াটা উত্তম। মনে রাখতে হবে এটি সাধারণতঃ সারতে কয়েকদিন সময় লাগে।

Comment Here

Your email won't be public

You can use these HTML tags and markups: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

*